You are here: Home

Articles

আনন্দঘন পরিবেশে নোবিপ্রবি’র প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী ২০১৭ উদযাপন

Share

নোবিপ্রবি/রেজি/জনসংযোগ-০৭/২০১৭               ১৫ জুলাই ২০১৭


 
প্রেস বিজ্ঞপ্তি

 

আনন্দঘন পরিবেশে নোবিপ্রবি’র প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী ২০১৭ উদযাপন

নানা আয়োজনের মধ্যদিয়ে অত্যন্ত উৎসবমুখর পরিবেশে আজ শনিবার (১৫ জুলাই ২০১৭ ) নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (নোবিপ্রবি) প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী ও বিশ্ববিদ্যালয় দিবস ২০১৭ উদযাপন করা হয়েছে। এ উপলক্ষে বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে ক্যাম্পাসে নানা কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়েছে। ক্যাম্পাসকে সাজানো হয় মনোরম পরিবেশে। বিশ্ববিদ্যালয়ের হলসহ একাডেমিক ও প্রশাসনিক ভবনে আলোকসজ্জা করা হয়। গুরুত্বপূর্ণ ভবনসমূহে ব্যানার ও ফেস্টুন টাঙানো হয়। এতে করে বিশ্ববিদ্যালয়ের সর্বত্রই উৎসবের আমেজ বিরাজ করে।

DSC 0495
অন্যান্য অনুষ্ঠানের মধ্যে ছিল উদ্বোধনী ঘোষণা, আনন্দ শোভাযাত্রা, বৃক্ষরোপণ, প্রামাণ্যচিত্র প্রদর্শনী, আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। সকাল ১০ টায় প্রশাসনিক ভবনের সামনে সমবেত জাতীয় সংগীতের মাধ্যমে পায়রা ও বেলুন উড়িয়ে বিশ্ববিদ্যালয় দিবস উদযাপন অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়ের মাননীয় মন্ত্রী জনাব ওবায়দুল কাদের এমপি, স্থানীয় সাংসদ জনাব একরামুল করিম চৌধুরী ও নোবিপ্রবি উপাচার্য প্রফেসর ড. এম অহিদুজ্জামান। পরে বর্ণাঢ্য আনন্দ শোভাযাত্রা বের করা হয়। এতে বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র-শিক্ষক, কর্মকর্তা-কর্মচারী সকলে সম্মিলিতভাবে অংশগ্রহণ করে। অংশগ্রহণকারীদের মধ্যে ক্যাপ ও টি-শার্ট বিতরণ করা হয়। শোভাযাত্র শেষে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধার্ঘ্য নিবেদন করা হয়। পরে বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার প্রাঙ্গনে বৃক্ষরোপণ করেন সেতু মন্ত্রী জনাব ওবায়দুল কাদের।

DSC 0417
শেষে সকাল সকাল ১১টায় হাজী মোহাম্মদ ইদ্রিস অডিটোরিয়ামে অনুষ্ঠিত হয় প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর আলোচনা সভা। উপাচার্য প্রফেসর ড. এম অহিদুজ্জামানের সভাপতিত্বে এতে প্রধান অতিথি মাননীয় সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী জনাব ওবায়দুল কাদের এমপি, বিশেষ অতিথি জনাব একরামুল করিম চৌধুরী, মাননীয় সাংসদ নোয়াখালী-৪ ও নোবিপ্রবি শিক্ষক সমিতির সভাপতি প্রফেসর. ড. মোহাম্মদ ইউছুফ মিঞা উপস্থিত ছিলেন।
সভার শুরুতে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য প্রফেসর ড. মো. আবুল হোসেন বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠাকাল হতে অদ্যাবধি অগ্রগতির বিভিন্ন তথ্য তুলে ধরে স্বাগত বক্তব্য রাখেন। সভা সঞ্চালনা করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার প্রফেসর মো. মমিনুল হক।
আলোচনা সভায় মাননীয় সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠাকালীন সময় ও বর্তমানের পথচলা তুলে ধরে বক্তৃতা করেন। তিনি বলেন, আমি আমার প্রিয় নেত্রী বর্তমান প্রধানমন্ত্রী দেশরতœ শেখ হাসিনাকে বলেছিলাম, নোয়াখালীতে প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় হতেই হবে। সেসময় নেত্রী আমাকে কথা দিয়েছিলেন এবং পরবর্তীতে কথা রেখেছেন। যার ফলশ্রুতিতে এ বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠিত হয় এবং আজকে পায়ে পায়ে অনেকদূর এগিয়েছে নোবিপ্রবি।
মন্ত্রী শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ করে বলেন, মেধাবীদেরই রাজনীতি করতে হবে। তা না হলে রাজনীতির মঞ্চ মেধাশূন্য হয়ে পড়বে। আর মেধাবী শিক্ষার্থীরা যাতে কোনোভাবেই মাদক, ইয়াবার মতো সায়েলেন্ট সুনামির কবলে পড়ে নষ্ট না হয়ে।

যায়, সেদিকে সবার দৃষ্টি রাখতে হবে। এসময় তিনি মাদক থেকে তরুণ সমাজকে রক্ষার জন্য সকল শ্রেণী পেশার মানুষের প্রতি আহ্বান জানান।
বিশেষ অতিথি জনাব একরামুল করিম চৌধুরী বক্তৃতায় বলেন, জননেত্রী শেখ হাসিনার ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় নোয়াখালীতে এ বিশ্ববিদ্যালয়টি প্রতিষ্ঠিত হয়েছে এবং এর উত্তরোত্তর অগ্রগতি সাধিত হচ্ছে।
প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর মত এমন আনন্দঘন দিনে বিশ্ববিদ্যালয়ের সর্বাঙ্গীন উন্নয়ন কামনা করে বক্তৃতা করেন আলোচনা সভার সভাপতি ও বিশ্বদ্যিালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. এম অহিদুজ্জামান। তিনি বলেন, যেকোনো বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্ষেত্রে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর দিনটি স্মরণীয় হয়ে থাকে। এটা বিশ্ববিদ্যালয়ের এগিয়ে চলার পথের মুকুট। নানা চড়াই-উতরাই পেরিয়ে আজ নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় একটি বিশ্বমানের বিশ্ববিদ্যালয় হিসেবে এগিয়ে চলছে। এসময় তিনি এ বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠায় সেতু মন্ত্রী জনাব ওবায়দুল কাদের এমপি’র অগ্রণী ভূমিকা ও উদ্যোগের কথা তুলে ধরেন। তিনি স্থানীয় সাংসদ জনাব একরামুল করিম চৌধুরীরও ভূয়সী প্রশংসা করেন। উপাচার্য বলেন, তিনি (সাংসদ) নোবিপ্রবি পরিবারের অভিভাবক। আমাদের ডাকে তিনি সবসময় ছুটে আসেন। আমরা এ জন্য তার প্রতি কৃতজ্ঞতা জানাই।
পরিশেষে অনুষ্ঠানে উপস্থিত হওয়ায় সকলকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানিয়ে সভার সমাপ্তি ঘোষণা করেন উপাচার্য প্রফেসর ড. এম অহিদুজ্জামান। এর আগে বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে আমন্ত্রিত অতিথিবৃন্দকে ক্রেস্ট প্রদান করা হয়। বিকেলে অনুষ্ঠিত হয় মনোজ্ঞ সাংস্কৃতি অনুষ্ঠান।
আলোচনা সভায় অন্যন্যের মাঝে উপস্থিত ছিলেন, জেলা প্রশাসক জনাব মো. মাহবুব আলম তালুকদার, জেলা পুলিশ সুপার ইলিয়াছ শরিফ, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আনম অধ্যক্ষ খারুল আনম সেলিম, নোয়াখালী পৌরসভার মেয়র শহীদ উল্লাহ খান সহেল, কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান বাদল, দৈনিক জাতীয় অর্থনীতির সম্পাদক কিবরিয়া চৌধুরী প্রমুখ। এছাড়া অনুষ্ঠানে নোবিপ্রবি পরিবারের বিভিন্ন অনুষদের ডিন, ইনস্টিটিউটের পরিচালক বৃন্দ, ছাত্র নির্দেশনা পরিচালক, বিভিন্ন বিভাগের চেয়ারম্যানবৃন্দ, হলের প্রভোস্টবৃন্দ, প্রক্টর, শিক্ষক সমিতির নেতৃবৃন্দ, অফিসার্স এসোসিয়েশনের নেতৃবৃন্দ, বঙ্গবন্ধু পরিষদ ও স্বাধীনতা শিক্ষক পরিষদের নেতৃবৃন্দ সহ ছাত্র-শিক্ষক, কর্মকর্তা-কর্মচারীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

Latest News

Noakhali Science And Technology University, Noakhali-3814, Bangladesh