নোবিপ্রবি উপাচার্যের মেয়াদপূর্তিতে অভিনন্দন জ্ঞাপন


প্রেস বিজ্ঞপ্তি : নোবিপ্রবি উপাচার্যের মেয়াদপূর্তিতে অভিনন্দন জ্ঞাপন

নোয়াখালী বিজ্ঞান ও  প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (নোবিপ্রবি) মাননীয় উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো: দিদার-উল আলমের একবছর মেয়াদপূর্তিতে তাকে অভিনন্দন জানানো হয়। আজ শুক্রবার (১২জুন ২০২০) নোবিপ্রবিতে উপাচার্য হিসেবে অধ্যাপক ড. মো: দিদার-উল আলম এর বছরপূর্তিতে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন ইনস্টিটিউট, অনুষদ, বিভাগ, দপ্তর ও শাখায় কর্মরত শিক্ষক-শিক্ষার্থী; কর্মকর্তা-কর্মচারীবৃন্দ তাদের স্ব স্ব সমিতির পক্ষ থেকে উপাচার্য মহোদয়কে পৃথক পৃথকভাবে এ অভিনন্দন জানায়।

অভিনন্দন বার্তায় বলা হয়; জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শ তথা মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাসী এবং মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনার উন্নত বাংলাদেশ বিনির্মাণের রুপকার অধ্যাপক ড. মো. দিদার-উল-আলম এর মতো একজন মেধাবীনেতৃত্বের গুণাবলী সম্পন্ন ব্যক্তিকে অভিভাবক হিসেবে পেয়ে এ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষার্থী, কর্মকর্তা-কর্মচারীবৃন্দ কৃতজ্ঞ ।
বিগত বছরের ন্যায় আগামীদিনগুলোতেও মাননীয় উপাচার্য বিশ্ববিদ্যালয়ের একাডেমিক ও ভৌত অবকাঠামোগত সর্বাঙ্গীণ উন্নয়নকে আরো উত্তরোত্তর ত্বরান্বিত করতে সক্ষম হবেন।নোবিপ্রবি পরিবার সর্বদা উপাচার্যের অধ্যাপক ড. মো: দিদার-উল আলম সুস্বাস্থ্য, দীর্ঘায়ু ও সাফল্য কামনা করে।

বার্তায় আরো বলা হয়; মাননীয় উপাচার্যের ঐকান্তিক চেষ্টায় নোবিপ্রবিতে করোনা ল্যাব চালু হয়। এতে করে বৃহত্তর নোয়াখালীর সর্বসাধারণ উপকৃত হচ্ছে। এইভাবে
উপাচার্যের মহোদয় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক গতিশীলতা, সুষ্ঠু উন্নয়নমূলক কর্মকাণ্ড পরিচালনা ও শিক্ষার সুষ্ঠু পরিবেশসহ সকল ক্ষেত্রে দক্ষতার পরিচয় দিয়েছেন। একই সাথে শিক্ষক, কর্মকর্তা, কর্মচারী ও শিক্ষার্থীসহ সকলকে তিনি মানবিক দক্ষতায় মুগ্ধ করেছেন। সবাই বিশ্বাস করে মাননীয় উপাচার্যে তাঁর সততা, যোগ্যতা, প্রজ্ঞা ও গতিশীল নেতৃত্ব দিয়ে নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়কে সামনে এগিয়ে নিয়ে যাবেন। 

প্রসঙ্গত,  গত ১২ জুন নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (নোবিপ্রবি)  নতুন উপাচার্য হিসেবে নিয়োগ পান প্রফেসর ড. মো: দিদার-উল আলম। তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সয়েল, ওয়াটার ও এনভায়রনমেন্ট  বিভাগের অধ্যাপক। মহামান্য  রাষ্ট্রপতি ও বিশ্ববিদ্যালয়ের চ্যান্সেলর  জনাব মো. আবদুল হামিদ নোবিপ্রবি আইন ২০০১ এর ধারা ১০ এর (১)  অনুযায়ী আগামী চার বছরের জন্য  এ নিয়োগ দেন।  অধ্যাপক ড. মো. দিদার-উল-আলম ১৯৬৯ সালে নারায়ণগঞ্জের জয়গোবিন্দ হাই স্কুল থেকে এসএসসি ও নারায়ণগঞ্জ তোলারাম কলেজ থেকে এইচএসসি সম্পন্ন করে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে মৃত্তিকা বিজ্ঞান বিষয়ে বিএসসি ও এমএসসি সম্পন্ন করে স্কটল্যান্ডের ইউনিভার্সিটি অব অ্যাবারডিন থেকে ১৯৯০ সালে প্ল্যান্ট অ্যান্ড সয়েল সায়েন্স বিষয়ে পিএইচডি ডিগ্রি অর্জন করেন। ১৯৮৩ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মৃত্তিকা বিজ্ঞান বিভাগে প্রভাষক হিসাবে যোগ দেন। বর্তমানে ২০১১ সাল থেকে তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সিলেকশন গ্রেডের একজন অধ্যাপক। এছাড়া তিনি ১৯৮১-১৯৮৩ সাল পর্যন্ত নদী গবেষণা ইনস্টিটিউটের গবেষক হিসেবেও কাজ করেছেন।

 

(স্বাক্ষরিত)
১২ জুন ২০২০
ইফতেখার হোসাইন
জনসংযোগ কর্মকর্তা
নোবিপ্রবি;
মোবা: 01733-998894